বাংলা দেখা না গেলে

রেজি নং-ডিএ-৯১১, ঢাকা ১৮ জানুয়ারী ২০২০, শনিবার। অনলাইন সংখ্যা: ১৬৩৯

জয়পুরহাটে আলু চাষ লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে

জয়পুরহাটে আলু চাষ লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে গেছে

১৪ জানুয়ারী ২০২০, ১৬:৫১, মঙ্গলবার ।

পথযাত্রা রিপোর্ট ।।

আলু চাষে উদ্বৃত্ত জেলা জয়পুরহাটের কৃষকরা এখন আলুর ক্ষেতের পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। জেলায় চলতি মৌসুমে প্রায় ৩৭ হাজার ৯১৭ হেক্টর জমিতে আলু চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধার্য করা হলেও ইতোমধ্যে ৩৮ হাজার ৩২৫ হেক্টর জমিতে আলু চাষ সম্পন্ন হয়েছে। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৪০৮ হেক্টর বেশি।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্র বাসস’কে জানায়, আলু উৎপাদনে উদ্বৃত্ত জেলা হিসেবে পরিচিত উত্তরাঞ্চলের ছোট জেলা জয়পুরহাটে আলু চাষ সফল করতে ব্যাপক কর্মসূচী হাতে নিয়েছে স্থানিয় কৃষি বিভাগ। চলতি ২০১৯-২০ রবি ফসল চাষ মৌসুমে জেলায় ৩৭ হাজার ৯১৭ হেক্টর জমিতে আলু লাগানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হলেও চাষ হয়েছে ৩৮ হাজার ৩ শ ২৫ হেক্টর ।
কৃষি বিভাগ জানায়, আলু চাষ সফল করতে জেলায় সারের মজুদ পর্যাপ্ত রয়েছে। জানুয়ারি মাসের মজুদ সারের পরিমান হচ্ছে ইঊরিয়া ৫ হাজার ১৬৪ মে. টন, টিএসপি ১ হাজার ৩৬৬ মে.টন, এমওপি ১ হাজার ৫২৮ মে. টন ও ডিএপি ২ হাজার ২৭৫ মে. টন। কৃষি বান্ধব সরকারের বিভিন্ন ধরনের আগাম প্রস্তুতি গ্রহণের ফলে জেলায় আলু বীজ বা রাসায়নিক সারের কোন প্রকার সংকট সৃষ্টি হয়নি। আমন ধান কাটা মাড়াই শেষ করেই আলু চাষে উদ্বৃত্ত জেলা জয়পুরহাটের কৃষকরা আলু চাষে ঝাপিয়ে পড়ে।
কৃষি বিভাগ আরো জানায়, জেলায় আলু চাষ সফল করতে কৃষক পর্যায়ে প্রশিক্ষণসহ উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তারা সার্বক্ষণিক মনিটরিং ও কৃষকদের পরামর্শ প্রদান করছেন। বিএডিসি’র পক্ষ থেকে কৃষকদের মাঝে উন্নত জাতের আলু বীজ সরবরাহ করা হয়েছে এবং বর্তমানে জেলার উপর দিয়ে বয়ে চলা শৈত প্রবাহের ফলে আলু ক্ষেতের যাতে ক্ষতি না হয় সে জন্য কৃৃষক পর্যায়ে পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে বলে জানান, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ স ম মেফতাহুল বারি। বর্তমানে বাজারে আসা আগাম জাতের আলু ২৫ থেকে ৩০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে বলেও জানান তিনি।
জয়পুরহাটের আলু উন্নত মানের হওয়ায় গত বছর দেশের গন্ডি পেরিয়ে ৯ টি দেশে রপ্তানী করা হয়। দেশ গুলো হচ্ছে মালেশিয়া, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, জাপান, ইন্দোনেশিয়া, সৌদি আরব, কুয়েত, নেপাল ও রাশিয়া। প্রাচীন বরেন্দ্র অঞ্চল হিসেবে পরিচিত জয়পুরহাট জেলায় লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে অধিক পরিমাণ জমিতে আলুর চাষ হয়ে থাকে। গত বছর ৪২ হাজার ৫শ ৩০ হেক্টর জমিতে আলু চাষ হয়েছিল। এতে আলু উৎপাদন হয় ৮ লাখ ১৫ হাজার মে: টন। ফলন ভালো হওয়ায় জেলায় গ্যানোলা, মিউজিকা, ডায়মন্ড, এস্টোরিকস, কার্ডিনাল, ও রোজেটা জাতের আলু বেশি চাষ করে থাকেন কৃষকরা। জেলার ১৫ টি কোল্ড ষ্টোরেজে প্রায় দেড় লাখ মে: টন আলু রাখা সম্ভব হয় বলে জানায়, কৃষি বিভাগ।

***পথযাত্রায় প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

দেশজুড়ে বিভাগের সর্বশেষ সংবাদ

দেশজুড়ে এর সব খবর >>