বাংলা দেখা না গেলে

রেজি নং-ডিএ-৯১১, ঢাকা ৩০ মার্চ ২০২০, সোমবার। অনলাইন সংখ্যা: ১৭১০

ফিটনেসের কাজ করছেন সৌম্যরা

ফিটনেসের কাজ করছেন সৌম্যরা

১৮ মার্চ ২০২০, ১০:০৯, বুধবার ।

স্পোর্টস রিপোর্ট ।।

করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক এখন বিশ্ব জুড়ে। মহামারি রূপে ধরা দেওয়া এই ভাইরাসের কারণে থমকে পড়েছে বিশ্ব ক্রীড়াঙ্গন। বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনও স্তব্ধ হয়ে পড়েছে। ঘরোয়া ক্রিকেটের অন্যতম আকর্ষণীয় প্রতিযোগিতা বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের দ্বিতীয় রাউন্ড স্থগিত করা হয়েছে। যা আজই মাঠে গড়ানোর কথা ছিল। সূচি অনুযায়ী ২১-২২ মার্চ লিগের খেলা রয়েছে। কয়েক দিনের বিরতির পর লিগ আবার শুরু হবে কি না তা এখনো নিশ্চিত নয়। তবে জানা গেছে, সতর্কতা অবলম্বন করে খেলায় ফিরতে রাজি ক্রিকেটাররা এবং ক্লাবগুলো।


করোনা ভাইরাসের কারণে প্রিমিয়ার লিগে বিরতি পেয়েছেন ক্রিকেটাররা। এই সময়েও বসে নেই তারা। ফিটনেস নিয়ে কাজ করছেন সবাই। অবশ্য খেলা স্থগিত হওয়াকে স্বাগত জানিয়েছেন সৌম্য সরকার। খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে থাকতে চান, খেলতে চান বাঁহাতি এই ওপেনার।

পুরোপুরি বিশ্রামে যাচ্ছেন না জানিয়ে সৌম্য গতকাল বলেছেন, ‘খেলা স্থগিত করা হয়েছে তবে ফিটনেসের মধ্যে আছি। একেবারে বিশ্রামে চলে যাচ্ছি না।’

এবার লিগে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের হয়ে খেলছেন সৌম্য। প্রথম ম্যাচে প্রাইম ব্যাংকের কাছে হেরে গেছে তাদের দল। ৪৯ রান করেছেন এই ওপেনার। লিগ স্থগিত করাকে সঠিক সিদ্ধান্ত বলেই মনে করেন তিনি। মিরপুর স্টেডিয়ামে গতকাল তিনি বলেছেন, ‘এটা অবশ্যই সবার ভালোর জন্য। আশা করি দেশের মানুষ সুস্থ থাকবেন, আমরাও সুস্থ থাকি। সুস্থ থাকাটাই মুখ্য। সুস্থ থাকলে সামনে অনেক খেলা পাব। এর মধ্যে ফিটনেসের কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকব।’

দ্রুত করোনা ভাইরাসের প্রভাব কেটে যাক, এমনটাই চাওয়া সৌম্যর। তিনি বলেছেন, ‘আমরা খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে থাকতে চাই, ফিরতে চাই। যেহেতু একটা ভাইরাসের জন্য এ সিদ্ধান্ত নেওয়া তো ভালো অবশ্যই। তো যত দ্রুত এ জিনিস কাটিয়ে উঠবে, আমরা মাঠে নামতে পারব।’

মাঠে ভাইরাস ছড়াতে পারে সম্ভাবনায় লিগ স্থগিত করা হয়েছে। কারণ ম্যাচে অনেক খেলোয়াড় জড়ো হন। যদিও ম্যাচ চলাকালীন প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করতে দেখা গেছে ক্রিকেটারদের। মাঠে ভাইরাস ছড়ানো সম্ভব কি না— এ প্রশ্নে সৌম্য বলেছেন, ‘এটা আমি বলতে পারব না, ডাক্তাররা ভালো বলতে পারবে। তবে ব্যক্তিগতভাবে সতর্ক থাকা ভালো। যেগুলো নিয়ম আছে মেনে চলতে হয়, সেগুলো মেনে চলছি। অনেকেই আছে যে তারা নিজেদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা বেশি দেখি, তো ব্যক্তিগত ব্যাপার। তবে খেলোয়াড় হিসেবে আমি সবসময় মাঠে থাকতে চাই, খেলতে চাই। আর যেহেতু একটা ভাইরাস আতঙ্ক চলছে, যত দ্রুত সম্ভব পরিস্থিতি ভালো হলে আমাদের জন্যও ভালো।’

করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে এপ্রিলে বাংলাদেশ দলের তৃতীয় দফা পাকিস্তান সফর স্থগিত করা হয়েছে। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ স্থগিত হয়েছে। ক্রিকেটাররা অবশ্য জেনেছেন, লিগের এক রাউন্ডই পেছানো হয়েছে। এই সময়ে সৌম্য ব্যক্তিগতভাবে অনুশীলন চালিয়ে যাবেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের দল থেকে বলা হয়েছে—একটা খেলা পেছানো হয়েছে এটাই। তাছাড়া ব্যক্তিগতভাবে সবাই আমরা ফিটনেসের দিকে আছি এবং অনুশীলনও করব ব্যক্তিগতভাবে। যখনই বলবে যে খেলা শুরু হবে তখনই আবার মানসিকতাটা খেলার মধ্যে নিয়ে যাব।’

***পথযাত্রায় প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

আপনার মন্তব্য লিখুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বশেষ সংবাদ

খেলাধুলা এর সব খবর >>